জগদ্ধাত্রী পুজোতেও ছয় ঘন্টা ও বিদ্যুৎহীন থাকবে চন্দননগর জানালেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস

0

Last Updated on October 30, 2022 10:56 PM by Khabar365Din

- Advertisement -

৩৬৫দিন। করোনার কারণে গত দু’বছর জগদ্ধাত্রী পুজোকে কেন্দ্র করে চন্দননগরে সেভাবে কোনও জাঁকজমক দেখা যায়নি। তবে এ বছরও জগদ্ধাত্রী পুজোয় পুরনো ছন্দে ফিরতে পারবে না চন্দননগর। কারণ এবারও বিদ্যুৎহীন থাকবে চন্দননগর। এমনটাই জানালেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। শুক্রবার জগদ্ধাত্রী পুজোর বৈঠকে চন্দন নগরে গিয়ে জানালেন সকাল দশটা থেকে ছয়টা পর্যন্ত বিদ্যুতিহীন থাকবে চন্দননগর।

অবশ্য বিদ্যুৎ না থাকলেও চালু থাকবে জলের পাম্প। জেনারেটরের ব্যবস্থাও রাখা হবে বলে খবর। আশা ছিল জগদ্ধাত্রী পুজোর আগেই মাটির তলায় বিদ্যুতের কেবল বসানোর কাজ শেষ হয়ে যাবে। তবে কাজ শুরুই হবে ডিসেম্বর, নয়তো জানুয়ারি।

তাই কিভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে সে ব্যাপারে জেলা প্রশাসন ও বিদ্যুৎ দপ্তরের আধিকারিকদের নিয়ে জ্যোতিরিন্দ্র সভা গৃহে বৈঠক করেন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। বৈঠকে স্থানীয় বিধায়ক তথা মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেনও ছিলেন। জগদ্ধাত্রী পুজো নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়।

জানা গিয়েছে, এর আগে চন্দননগরের ঐতিহ্যবাহী এই পুজোর জন্য ৩৮.৯৬ মেগা ওয়াট বিদ্যুতের প্রয়োজন হত। এবার ৫০ মেগা ওয়াট বিদ্যুৎ দরকার। কিন্তু ৯৭.৮ মেগা ওয়াট পর্যন্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ করা সম্ভব। অর্থাৎ বিদ্যুতের চাহিদা নিয়ে কোনও সমস্যা হবে না বলেই জানান অরূপ বিশ্বাস।

এছাড়াও তিনি আরও জানান , জগদ্ধাত্রী পুজোর বিদ্যুৎ সরবরাহে যাতে কোনও সমস্যা না হয় তা দেখার জন্য ৬৬৫ জন কর্মী ২৪ ঘন্টা কাজ করবে। খোলা থাকবে বিদ্যুৎ দপ্তরের ১৩টি অফিসও। ৪১টি মোবাইল ভ্যানও ঘুরবে বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here