এসটিএফ এবং বীরভূম জেলা পুলিশের যৌথ অভিযানে আটক ৮১ হাজার ডিটোনেটর

0

Last Updated on July 1, 2022 10:57 AM by Khabar365Din

- Advertisement -

৩৬৫ দিন। রাজ্য পুলিশের এসটিএফ এবং বীরভূম জেলা পুলিশের যৌথ অভিযানে বানচাল করলো বড়োসড়ো নাশকতার ছক। একটি টাটাসুমো গাড়ি থেকে একাশি হাজার ডিটোনেটর সহ একজন গাড়ির চালক কে গ্রেপতার করা হয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা যাচ্ছে রাজ্য পুলিশের স্পেশাল টাস্কফোর্স এর দপ্তরে খবর আসে রাণীগঞ্জ থেকে বিপুল পরিমাণে বিস্ফোরক পাচার হবে বীরভূমের উপর দিয়ে। সেই মোতাবেক এসটিএফের একটি বিশেষ দল বীরভূম জেলা পুলিশের সাথে যোগাযোগ করে যৌথ ভাবে জাতীয় সড়কের ওপর নজরদারি চালাচ্ছিলো।

বৃহস্পতিবার ভোররাতে আচমকাই এসটিএফের কাছে খবর আসে একটি টাটাসুমো গাড়িতে করে বিস্ফোরক পাচার হচ্ছে , নির্দিষ্ট তথ্যের এাটিএফের বিশেষ দল ও বীরভূম জেলার মহম্মদ বাজার থানা পুলিশ তিলপাড়া ব্যারেজের কাছে অপেক্ষা করে , টাটাসুমো টি তিলপাড়া ব্যারেজের কাছে আসতেই পুলিশ গাড়িটিকে থামতে গেলে গতি বাড়িয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেস্টা করে , কিন্তু মহম্মদ বাজার থানার পুলিশ রীতিমতো ফিল্মি কায়দায় টাটাসুমো গাড়িকে ধাওয়া করে ধরে ফেলে মহম্মদ বাজার থানার কাছে। গাড়ির চালককে আটক করে মহম্মদ বাজার থানায় নিয়ে এসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

চালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বিস্ফোরোক পাচার চক্রের বাকিদের হদিশ চালাচ্ছে এসটিএফ। ধৃত গাড়ির চালক আশিস কেওরা জানিয়েছে, পশ্চিম বর্ধমানের রানিগঞ্জ এলাকা থেকে ডিটোনেটরগুলি রামপুরহাটে আনা হচ্ছিল। এসটিএফ সূএে জানা যাচ্ছে সিউড়ী আদালতে তুলে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে আরো জিজ্ঞেস করা হবে। এসটিএফ জানার চেষ্টা করবে এত বিপুল পরিমাণ ডিটোনেটর কোথায় এবং কি উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। বীরভূমের পুলিশ সুপার নগেন্দ্রনাথ এিপাঠী জানিয়েছেন ,এই অভিযান চালানোর জন্য এসটিপি তরফে বীরভূম জেলা পুলিশের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছিল , আমরা সর্বসম্মতভাবে অভিযান চালাতে এসটিএফ কে সাহায্য করা হয়েছে।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here