স্ত্রীকে লোহার রড দিয়ে আঘাত করে স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা

0

Last Updated on June 27, 2022 10:42 AM by Khabar365Din

- Advertisement -

৩৬৫ দিন। বর্ধমান। স্ত্রীকে সন্দেহ স্বামীর। আর সন্দেহের বশে লোহার রড় দিয়ে স্ত্রীর মাথায় আঘাত করে স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা। জখম অবস্থায় দুজনেই বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। রবিবার ঘটনাটি ঘটে ভাতার থানার ছাতনি এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় ছাতনি গ্রামের বাসিন্দা জয়দেব খাঁ ও তাঁর স্ত্রী রিঙ্কুদেবীর সাথে ঝামেলা হয়। প্রতিবেশীরা জানান, রবিবার সকালের দিকে জয়দেববাবুর সাথে রিঙ্কুদেবীর স্বামীস্ত্রীর তখন সকাল। রিঙ্কুদেবীর সঙ্গে তার স্ত্রীর ঝগড়া শুরু হয়। তবে প্রতিবেশীরা প্রথমে নাক গলাননি। জয়দেববাবুর ছেলেমেয়েদের চিৎকার শুনে প্রতিবেশী কয়েকজন এসে দেখেন রিঙ্কুদেবী রক্তাক্তবস্থায় পড়ে রয়েছেন। বধূর মাথায় লোহার রডে উপুর্যপরি আঘাত করে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় জয়দেব।

বধূর শ্বশুর আহত পুত্রবধূকে ভাতার হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তারপর অবস্থা সংকটাপন্ন দেখে চিকিৎসকরা তাকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। ঘটনা ঘটার পর থেকে অভিযুক্ত জয়দেবের খোঁজ পাওয়া যায়নি। এরপর ভাতারের বড়বেলুন গ্রামে বিদ্যুৎ ট্রান্সফরমারের তলায় জয়দেবকে তড়িদাহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা।

তাকে উদ্ধার করে তাকে ভাতার গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে আসেন। স্ত্রী মরে গিয়েছে ভেবেই প্রায় চারকিলোমিটার হেঁটে গিয়ে বড়বেলুন গ্রামে বিদ্যুতের লাইনে হাত দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন জয়দেববাবু। জয়দেবকেও বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

আহত জয়দেববাবুর দাবি,” বউ খালি ফোনে অন্যজনের সঙ্গে কথা বলত। কার সঙ্গে কথা বলত অনেক জিজ্ঞাসা করলেও বলত না। নম্বর ডিলিট করে দিত। তাই ঝগড়ার সময় রাগের বশে মেরেছি।” যদিও পুলিশ জানায় এদিন বিকেল পর্যন্ত নির্দিষ্ট কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি। তবে পুলিশ বিষয়টি নিয়ে খোঁজখবর শুরু করেছে।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here