মার্কিন মহিলা ধর্ষণে রোনাল্ডোকে বেকুসুর খালাস ঘোষণা আদালতের, স্বস্তি পর্তুগিজ তারকার

0

Last Updated on June 13, 2022 8:53 PM by Khabar365Din

- Advertisement -

৩৬৫ দিন: সুপারস্টার ফুটবলার হওয়ার কম ঝামেলা নেই। একদিকে যেমন সারা পৃথিবীর মানুষের মনে জায়গা করে নেওয়া যায়, তেমনই প্রচুর মিথ্যা অপবাদে জড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তেমনটাই হয়েছিল ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর সঙ্গে। যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে করা ধর্ষণ মামলা খারিজ করে দিয়েছেন বিচারক জেনিফার ডোরসি। শুক্রবার এই ধর্ষণ মামলা থেকে পুরোপুরি অব্যাহতি পেয়েছেন রোনালদো। চাইলেও পুনরায় মামলা করতে পারবেন না ক্যাথরিন মায়োরগা নামের সেই নারী। ঘটনা মূলত প্রায় ১৩ বছর আগে, ২০০৯ সালের। লাস ভেগাসে ঘুরতে গিয়ে একটি হোটেলে ক্যাথরিনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা হয় রোনালদোর।

যা একপর্যায়ে শারীরিক সম্পর্কে রূপ নেয়। কিন্তু পরের বছরই এটিকে ধর্ষণ বলে অভিযোগ করতে থাকেন ক্যাথরিন। এমনকি মামলার হুমকিও দেন। তখন ক্যাথরিনকে চুপ রাখার জন্য প্রায় পৌনে ৪ লাখ ডলার দেন রোনালদো। সে দফায় কোর্টের বাইরেই নিষ্পত্তি ঘটে দুই পক্ষের বিরোধের। কিন্তু পরে আবারও এ বিষয়ে অভিযোগ করেন ক্যাথরিন। তার অনুরোধের ভিত্তিতে ২০১৮ সালের আগস্টে আবারও এ বিষয়ে আইনী তদন্ত শুরু হয়।


ক্যাথরিনের অভিযোগের বিপরীতে রোনাল্ডোর লিগ্যাল টিম শুরু থেকেই বলে আসছিল, দুজনের মধ্যে যা হয়েছিল সবই পারস্পরিক সম্মতিতে হয়েছে। তাই এ মামলার কোনো ভিত্তি নেই এবং রোনালদোকে কারণ ছাড়াই হয়রানি করা হচ্ছে। শেষ পর্যন্ত এটিই সত্য প্রমাণিত হল। বিচারক জেনিফার ডোরসি তার ৪২ পৃষ্ঠার রায়ে জানিয়েছেন, পুনরায় আর এই মামলা করা যাবে না।

পাশাপাশি রোনালদোর সঙ্গে করা খারাপ আচরণের কারণে শাস্তির মুখে পড়তে হবে ক্যাথরিনের আইনজীবী লেজল মার্ক স্টোভালকে। এছাড়া কোর্টে উপস্থাপিত কাগজপত্র বেশিরভাগই সাজানো ছিল বলে উল্লেখ করেছেন বিচারক। এই মুহূর্তে পর্তুগালের হয়ে খেলতে ব্যস্ত রোনাল্ডো। এই মামলার নিষ্পত্তি তাকে মানসিক শান্তি দেবে।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here