শিলিগুড়ির ব্যর্থতার ইস্তাহার অশােকের

0

Last Updated on March 22, 2021 7:35 PM by Khabar365Din

জয়দীপ সরকার। শিলিগুড়ি

- Advertisement -

৩৬৫ দিন। সিপিএমের নয়, নিজের ব্যর্থতা তুলেই শহরের পৃথক নির্বাচনী ইস্তেহার প্রকাশ বাম কংগ্রেস জোট প্রার্থী অশােকের। রাজ্যের ইস্তেহারকে একপাশে রেখে পৃথক নিজস্ব ইস্তেহার প্রকাশ করলেন অশােক ভট্টাচাৰ্য্য। নিজের ছবি দিয়ে ইস্তেহার প্রকাশ করেন তিনি। ইস্তেহার জুড়ে রইল শিলিগুড়ি শহরের তার ব্যর্থতায় হওয়া তার অব্যবস্থার চিত্র। নিজস্ব ব্যর্থতাই উঠে এলাে অশােকের নিজ নির্বাচনী ইস্তেহারে। শিলিগুড়ি শহরে বিধায়ক ও পুরনিগম দুই পদেই আসীন রয়েছেন অশােক ভট্টাচাৰ্য্য। তার বিরুদ্ধেই শিলিগুড়ি শহরের পানীয় জলের সমস্যা, বেহাল নিকাশি নালার, বিজ্ঞান সম্মত উপায়ে আবর্জনা নিষ্কাশন ও পুনঃনবীকরনের বিষয়ে অভিযােগ তুলে একাধিকবার সরব হয়েছে প্রতিপক্ষ তৃনমূল। পানীয় জল নিকাশি নালার সমস্যায় অতিষ্ঠ শহরবাসী। পার্কিং ও পাট্টা নিয়ে অশােকবাবুর অসযােগীতায় থেমে রয়েছে কাজ বলেও নির্বাচনের দিন ঘােষণার আগেই অভিযােগ তুলেছিলেন প্রাক্তন মন্ত্রী গৌতম দেব। আর তার সময়কাল ব্যাপী সেই সব না হওয়া কাজের নিজ ব্যর্থতার দাবি তুলে ধরেই নির্বাচনী ময়দানে লড়তে নামলেন অশােক। নির্বাচনের আগে রাজ্যের তরফে ইতিমধ্যেই পাট্টা প্রদানের কাজ শুরু হয় সেই রাজ্যের ঘােষিত পাট্টা প্রদানকে নিজ নির্বাচনি ইস্তেহারে সামিল করলেন অশােক বাবু জানান রেল ও সরকারী জমিতে দীর্ঘকাল ধরে বসবাস কারীদের জমির অধিকার পাট্টা দিতে হবে। অথচ পুরনিগমের জমিতে বসবাসকারী ৮৪৩জনের পাট্টা তৈরি করে তবে অশােক বাবু রাজনৈতিক স্বার্থে বাঁধ সেধে জেলাশাসককে অসম্মতি জানিয়ে চিঠি পাঠান যার জেরে আটকে যায় পাট্টা প্রদান। অন্যদিকে পানীয় জলের সমস্যাও মেটাতে চূড়ান্ত ব্যর্থ হন অশােকবাবু। তা নিয়ে বিরােধী পক্ষে থাকা তৃনমূল সুর চড়ালেও। সেকথা তার সময়কালে স্বীকার না করেননি তিনি। অথচ ইস্তেহারে সে কথা উল্লেখ্য করেন তিনি। সে বিষয়ে তিনি বলেন সমস্যা ছিল কিন্তু তা রাজ্য ও কেন্দ্রের ওপর নির্ভর। যদিও সম্প্রতি ফিরহাদ হাকিম শিলিগুড়িতে গান্ধী মূর্তি অনুষ্ঠানের উদ্বোধনে এসে পানীয় জলের সমস্যা নিবারণে আম্মরুত প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করেন শিলিগুড়িকে। অন্যদিকে বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে আবর্জনা নিষ্কাশন না হওয়ায় নরক যন্ত্রণার সম্মুখীন শিলিগুড়ি ডাম্পিং গ্রাউন্ড এলাকার স্থানীয়রা। যদিও রাজ্যের সরকার থাকাকালীন ১৮কোটি টাকার বিজ্ঞান সম্মত উপায়ে আবজর্না নিষ্কাশন ও পুনঃনবিকরনের জন্য ধার্য করা হলেও সে কাজ শুরুই করতে পারেননি অশােক বাবু। রাজনৈতিক মহলের গুঞ্জন নিজের ব্যর্থতার হাঁড়ি নিজের হাতেই হাটে ভাঙছেন অশােকবাবু।

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here